1. admin@hvoice24.com : admin :
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

আন্দোলনের মুখেই সরকার পতন করা হবে:জি কে গউছ

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর, ২০২২
  • ১১৮ বার পঠিত

আওয়ামীলীগ সরকার চেষ্টা করছে আরেকটা পাতানো নির্বাচন দিয়ে ক্ষমতায় থাকার জন্য। কিন্তু দেশের জনগণ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ। জনগণ এই সরকারের পতন চায়, সুশাসন চায়, একটা অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী বানাতে চায়।

গতকাল সোমবার বিকালে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির শোক র‌্যালী পরবর্তি এক শোক সভায় বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও টানা ৩ বারের নির্বাচিত হবিগঞ্জ পৌরসভার পদত্যাগকারী মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছএসব কথা বলেন।

চলমান আন্দোলনে পুলিশের গুলিতে নিহত বিএনপির ৫ নেতাকর্মী হত্যার প্রতিবাদে হবিগঞ্জে স্মরণকালের এই বিশাল শোক র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালীতে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতে শহরের প্রধান সড়ক জনসমুদ্রে পরিণত হয়। পরে শায়েস্তানগরস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে এক শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় জি কে গউছ আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চায়। খালেদা জিয়া শুধু আমাদের নেত্রী নন। তিনি এ দেশের কোটি কোটি মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন। খালেদা জিয়া এ দেশের গণমানুষের নেত্রী। খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করছেন, লড়াই করছেন, মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আন্দোলন করছেন। আমরা শুধু বিএনপিকে ক্ষমতায় বসানোর জন্য সংগ্রাম করছি না। আমরা এ দেশের মানুষকে বাঁচাতে চাই, এ দেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চাই, এ দেশের মা-বোনদের নিরাপত্তা দিতে চাই। সে জন্যই আমারা সংগ্রাম করছি। আর এই সংগ্রামের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। তাই এই সরকার মনে করছে খালেদা জিয়াকে আটকে রেখে সবকিছু থেকে পার পেয়ে যাবে। কিন্তু তারা জানে না বন্দুকের জোরে কোনো স্বৈরশাসক মতায় টিকে থাকতে পারেনি, আওয়ামীলীগও পারবে না। খালেদা জিয়াকেও আটকে রাখতে পারবে না, গণআন্দোলনের মুখেই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে সরকারকে বাধ্য করা হবে।

সভায় বক্তব্য রাখেন, হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি এডভোকেট শামছু মিয়া চৌধুরী, এডভোকেট মঞ্জুর উদ্দিন শাহীন, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মিজানুর রহমান চৌধুরীর, এডভোকেট হাজী নুরুল ইসলাম ও হাজী এনামুল হক, সদস্য এমজি মোহিত, সরদার মোঃ আইয়ুব আলী পোদ্দার, এডভোকেট এস এম আলী আজগর, আব্দুল হান্নান ফরিদ, মুজিবুল হক মারুফ, আবু ছালেহ মোঃ শফিকুল ইসলাম, ফরহাদ হোসেন বকুল, শামছুল ইসলাম মতিন, আজিজুর রহমান কাজল, মুজিবুর রহমান শেফু, মেয়র ফরিদ আহমেদ অলি, নাজিম উদ্দিন শামছু, আব্দুল ওয়াদুদ তালুকদার আব্দাল, এডভোকেট মনিরুল ইসলাম, মহিবুল ইসলাম শাহীন, তাজুল ইসলাম চৌধুরী ফরিদ, এডভোকেট শামছুল ইসলাম, এডভোকেট আব্দুল কাদির, শামছুল আলম, গীরেন্ড চন্দ্র রায়, কামাল সিকদার প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা