1. admin@hvoice24.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

দেশের একমাত্র আন্তর্জাতিক সনদধারী রোবটিক সার্জন ডা.ঝিনুক

প্রেস
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১৬৬ বার পঠিত

কাটাছেঁড়া না করে ল্যাপারোস্কপির মাধ্যমেও সার্জারি হয়ে আসছে অনেক দিন আগে থেকে। এ জন্য দুই থেকে চারটি ছিদ্র করা লাগত অস্ত্রোপচারের জন্য। তবে এ ক্ষেত্রে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি হলো রোবোটিক সার্জারি। যে পদ্ধতিতে মাত্র একটি ছিদ্র করে রক্তপাতহীন সার্জারি করা সম্ভব। ২০১১ সাল থেকে আমেরিকা ও ইউরোপের দেশগুলোতে রোবোটিক সার্জারি শুরু হয়। এশিয়ায় এ ক্ষেত্রে নেতৃত্বে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। বাংলাদেশ এই প্রযুক্তির সঙ্গে এখনো সম্পৃক্ত না হলেও ডা. সরকার কামরুন জাহান ঝিনুক ইতিমধ্যে এই বিষয়ে আন্তর্জাতিক সনদ অর্জন করেছেন।

তিনি বর্তমানে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক সার্জনের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনিই দেশে একমাত্র রোবটিক সার্জারির ফেলোশিপ ডিগ্রী অর্জনকারী ও দেশের প্রথম রোবোটিক পাসপোর্টধারী। এই পাসপোর্ট (সনদ) অর্জনের কারণে তিনি বিশ্বের যেসব দেশে রোবোটিক সার্জারি প্রচলিত আছে, সেখানে কাজ করার যোগ্যতা অর্জন করেছেন। ডা. সরকার কামরুন জাহান ঝিনুক ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস সম্পন্ন করার পরে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস থেকে সার্জারি বিষয়ে এমসিপিএস ও এফসিপিএস সম্পন্ন করেন। এ ছাড়া যুক্তরাজ্যের রয়্যাল কলেজ অব লন্ডন থেকে এমআরসিএস ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

ডা. সরকার কামরুন জাহান ঝিনুক বলেন, চলতি বছরের ১৭ এপ্রিল থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত চার মাসের একটি ফেলোশিপে কোরিয়া ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে এই কোর্সটি সম্পন্ন করেন। সেখানে তিন মাস প্রশিক্ষণ শেষে এক মাসের থিসিস করতে হয়। তার অংশ হিসেবে তিনি অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির অক্সফোর্ড রোবটিক ইনস্টিটিউটে (ওআরআই) উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণ শেষে সবধরণের পরীক্ষায় সফলতার সঙ্গে উত্তীর্ণ হওয়ায় কোরিয়া ইউনিভার্সিটি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে রোবটিক সার্জারিতে ফেলোশিপ ডিগ্রী প্রদান করেন। সেই সঙ্গে অর্জন করেন দ্য ভিঞ্চি রোবটিক সার্জারি পাসপোর্ট সার্টিফিকেট।

রোবটিক সার্জারির সুবিধা তুলে ধরে এই সার্জন বলেন, প্রচলিত অপারেশন ও ল্যাপারোস্কপি থেকেও অন্তত ১০ গুণ বেশি সুবিধা রোবটিক সার্জারিতে। সামান্য একটি ছিদ্রের মাধ্যমে রোবটিক সার্জারিতে রক্তপাতহীনভাবে জটিল অপারেশন করা সম্ভব। প্রচলিত সার্জারির চেয়ে লোকবলও কম প্রয়োজন হয়। অপারেশনে সময় কম প্রয়োজন হয়। মাত্র একজন দক্ষ সার্জন ও একজন নার্স দ্বারা রোবটিক এ্যসিস্ট্যান্সে এই অপারেশন সম্পন্ন করা যায়। রোবটিক সার্জারিকে বলা হয় নন টাচ টেকনিক অপারশন। একজন দক্ষ সার্জন রোগীকে স্পর্শ না করেই রোবট দ্বারা অপারেট করার মাধ্যমে সার্জারি করে থাকেন। ফলে সার্জারি পরবর্তী জটিলতা কিংবা ইনফেকশন হারও তুলনামূলকভাবে শূন্যের কোঠায়। রোবট সুক্ষ্মভাবে অপারেশন পরিচালনা করে থাকে বলে ভুল হওয়ার সম্ভাবনাও তুলনামূলকভাবে কম।

কামরুন জাহান বলেন, বর্তমানে সাধারণ অস্ত্রোপচারে সবচেয়ে বড় সমস্যা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া। সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লে অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধের কারণে রোগীকে অনেক সময় বাঁচানো অসম্ভব হয়ে পড়ে। সে ক্ষেত্রে রোবটিক সার্জারি উত্তম।

ডা. সরকার কামরুন জাহান ঝিনুকের সনদের বিষয়ে সোসাইটি অব সার্জনস এর কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সরদার এ নাইম বলেন, কামরুন জাহান দেশের একমাত্র আন্তর্জাতিক সনদধারী রোবটিক সার্জন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা