1. admin@hvoice24.com : admin :
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৯:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বানিয়াচং ও আজমিরীগঞ্জে উপজেলা নির্বাচন, ভোটার উপস্থিতি নিয়ে শঙ্কা হবিগঞ্জ যাত্রী কল্যাণ পরিষদের বিবৃতির পর প্রশাসনের অভিযানে জরিমানা হবিগঞ্জ যাত্রী কল্যাণ পরিষদের কমিটি গঠন, সভাপতি-জুয়েল,সম্পাদক-তৌহিদুল ইসলাম গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে নির্যাতিত সম্মাননা পেলেন রুবেল চৌধুরী নরওয়েতে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে পবিত্র কোরআন পোড়ানো ব্যক্তিকে সহযোগীতার হাত বাড়ালেন ওসি কামাল হারানো সন্তান-কে হজে গিয়ে ফিরে পেলেন মা বিএনপি নেতা কারাবন্দি, সন্তানের ভালোবাসা সীতাকুণ্ডে সন্ত্রাসী হান্নান কে অস্ত্র সহ গ্রেফতার ডাঃ মহিউদ্দিন হাইস্কুল এন্ড কলেজে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালিত

প্রভুর আনুগত্যে অবিচল থেকে হয় আত্মশুদ্ধি!

সম্পাদকীয়
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৭ মার্চ, ২০২৩
  • ১২২ বার পঠিত

প্রভুর আনুগত্যে অবিচল থেকে আত্মশুদ্ধি তথা নফসকে কতল করতে হবে। সকল ধরনের রিপুনিচয়ের উর্ধ্বে উঠে মানুষকে হতে হবে যথার্থ মানুষ।

আল্লামা ইকবাল রহ. এর মতে, মানুষ যতক্ষণ পর্যন্ত তার অস্তিত্বের গুরুত্বকে অনুধাবন করতে না পারবে, ততক্ষণ পর্যন্ত তার স্বকীয়তার বিকাশ ঘটবে না। মানুষকে স্রষ্টা এমন ঐশী ক্ষমতা প্রদান করেছেন, যা প্রয়োগ করে মানুষ নিজের ব্যক্তিত্ব বিকাশের মাধ্যমে প্রতিটি সৃষ্টির ওপর কর্তৃত্ব স্থাপন করতে পারে।

আল্লামা ইকবাল রহ. বলেন –
তোমার খুদীকে এরূপ উন্নত কর, যেন প্রতিটি ভাগ্যলিপি লিখার শুরুতেই খোদা তোমাকে জিজ্ঞাসা করে, তোমার কী অভিপ্রায়!!

আল্লামা ইকবাল রহ. বলেন –
‘যদি তুমি খোদাকে সুস্পষ্ট দেখতে চাও, তাহলে তোমার খুদীকে আরও স্পষ্টতার দর্শন শিক্ষা দাও।’

আল্লামা ইকবাল রহ. খুদীকে উন্নীতকরণের জন্য তিনটি বিষয় উল্লেখ করেছেন :
১. আল্লাহর আনুগত্য,
২. আত্মসংবরণ ও
৩. খোদার প্রতিনিধিত্ব।

আল্লামা ইকবাল রহ. খুদীকে শক্তিশালী করে এ বিশ্ব প্রকৃতির ওপর বিজয়ী করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন। যেন সে খোদার খলিফা বা প্রতিনিধি হিসেবে আপন ইচ্ছামতো এ পৃথিবীকে সাজিয়ে তুলতে পারে। ‘আল্লামা ইকবাল রহ. এর মতে মুমিন যতই এই প্রাকৃতিক জগৎকে চিন্তা-গবেষণার মধ্য দিয়ে আপন আয়ত্তের মধ্যে আনতে সক্ষম হবে ততই তার খুদী বলিষ্ঠতর হবে- একমাত্র আল্লাহ ছাড়া অন্য কারো নিকট সে মাথা নত করবে না।
ইকবালের মতে সৃষ্টিজগতের মৌলিকত্ব খুদীকে স্বীকৃতি দেয়। সৃষ্টি জগতের অস্তিত্ব খুদীরই পরিণতি। খুদী সৃষ্টির অণু পরমাণুতেও ক্রিয়াশীল।

আল্লামা ইকবাল রহ. বলেন : যা কিছু অস্তিত্বশীল তা খুদীরই নিদর্শন, যা কিছু অবলোকন কর খুদীর রহস্য থেকেই।

– In every atom slumbers the might of the self. The mountain, river, waves, grass, candle, earth, sun etc. everything bears that unlimited power. (Allama Iqbals attitude towards sufism and his unique philosophy of self. p. 31)

ইকবালের দৃষ্টিতে খুদীর অস্তিত্ব বা প্রাণশক্তি মূলত ইচ্ছাময়। ইচ্ছা ও কর্মবিমুখ মানুষ জীবন বিবর্জিত ও নিষ্প্রাণ। প্রচেষ্টা ও ইচ্ছার দিকে মানুষ যতই অগ্রসর হবে জীবনের পথে সে ততই উন্নতি করবে। ইচ্ছার ক্রমবর্ধমান সম্প্রসারণশীলতার ফলেই খুদী শক্তিশালী ব্যক্তিত্বরূপ লাভ করে।

আল্লামা ইকবাল রহ. বলেন : জীবন তো অনুসন্ধানের মধ্যেই লুকিয়ে আছে। আর জীবনের মূল কামনা-বাসনার মধ্যে নিহিত।

প্রথমে পুষ্পবাগই বাগানের পথপ্রদর্শকরূপে আবির্ভূত হয়েছিল, অন্যথায় বুলবুল জানতো না যে, পুষ্পবাগ কী!’
প্রেম মানুষকে মহিয়ান করে। তবে প্রেম সম্বন্ধে আল্লামা ইকবাল রহ. এর দৃষ্টিভঙ্গি খোদাকেন্দ্রিক। প্রেম আমাদের ব্যক্তি স্বরূপের বিকাশে সাহায্য করে। তিনি বলেছেন, The ego is fortified by love এবং প্রেমের দ্বারা খুদী যখন সুদৃঢ় হয় তখন তার শক্তি সমগ্র পৃথিবীকে পরিচালনা করতে সক্ষম হয়।

আল্লামা ইকবাল রহ. বলেন : প্রেমের স্পর্শে খুদী যখন সুদৃঢ় হয় তখন সে বিশ্ব নিয়ন্তার শক্তিতে পুষ্ট হয়।

খুদীর মতো নিজ সত্তাকে জাগ্রত কর। জগৎকে উন্মুক্ত বিবেচনা কর। আল্লামা ইকবাল রহ. বলেন, যা খুদীকে উন্নত করে তা-ই ভালো। আর যা খুদীকে অবদমিত করে তা মন্দ ও পরিত্যাজ্য। তাঁর মতে খুদী কেবল স্বাধীন নয়; বরং অবিনশ্বরও। কিন্তু খুদীর এ অবিনশ্বরতা অর্জনসাপেক্ষ। নিরন্তর প্রচেষ্টার মাধ্যমেই এই অমরতা অর্জন করা যায়।

ইকবালের ভাষায়, কেউ যদি খুদীকে পর্যবেক্ষণ করে এবং খুদীকেই প্রধান অবলম্বন হিসেবে গ্রহণ করে তাহলে এটাও সম্ভব যে, সে মরেও অমর হয়ে থাকবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা