1. admin@hvoice24.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন বাংলাদেশি হাফেজরা

প্রেস
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১৮৭ বার পঠিত

বহির্বিশ্বে বিশেষ সুনাম আছে বাংলাদেশি ইমামদের। তাঁরা নিয়মিত ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সুনামের সঙ্গে তারাবির নামাজের ইমামতি করে থাকেন। প্রতিবছরের মতো এবারও বাংলাদেশি হাফেজরা বিশ্বের নানা প্রান্তে তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন। কালের কণ্ঠ’র পক্ষ থেকে বিভিন্ন দেশে দায়িত্বরত ইমামদের সঙ্গে কথা বলেছেন মুহাম্মাদ হেদায়াতুল্লাহ।

যুক্তরাজ্যের লুটন শহরে তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন বাংলাদেশের মাওলানা মুআজ্জম হুসাইন জাহিদ। শহরের ৩১৪ বিস্কট রোডের আল-জালাল মসজিদের নিয়মিত ইমাম সুনামগঞ্জের এই তরুণ আলেম। পবিত্র রমজানে তিনি তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন রেইনহ্যাম ওয়ে কমিউনিটি সেন্টারে। মুয়াজ্জম বলেন, ‘এখানে দেড় বছর ধরে আমি জুমার নামাজ পড়াচ্ছি। রমজান উপলক্ষে মুসলিম কমিউনিটির উদ্যোগে এখানে তারাবির নামাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিদিন বিভিন্ন দেশের দুই শতাধিক নারী ও পুরুষ নামাজ পড়তে আসেন। ভবিষ্যতে এখানে স্থায়ী মসজিদ তৈরির পরিকল্পনা আছে।

তা ছাড়া এখানকার মসজিদে বৈকালীন মক্তব শিক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন সেমিনার, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সামাজিক কার্যক্রম রয়েছে। উল্লেখ্য, জাহিদ মুয়াজ্জমের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতকে। তিনি চট্টগ্রামের জামেয়া দারুল মা‘আরিফ আল-ইসলামিয়ায় পড়াশোনা করেন। ২০১৭ সালে তিনি জামিয়া ইসলামিয়া হুসাইনিয়া গহরপুর থেকে দাওরা হাদিস সম্পন্ন করেন।

প্যারিসের ৫০ মসজিদে বাংলাদেশি ইমাম

ইউরোপীয় দেশগুলোর মধ্যে ফ্রান্সে সবচেয়ে বেশি মুসলিম বসবাস করে। অধিকাংশ মুসলিম আফ্রিকান বংশোদ্ভূত হলেও সেখানে অন্যান্য দেশের মুসলিমরাও আছে। রাজধানী প্যারিসের শ্রীলঙ্কান কমিউনিটির কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম ও খতিব হিসেবে দীর্ঘ পাঁচ বছর দায়িত্ব পালন করেন মাওলানা আমিন উদ্দীন। বর্তমানে সারসেল জামে মসজিদে তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন সুনামগঞ্জের এই তরুণ আলেম। আমিন উদ্দীন বলেন, ‘প্যারিসের ছোট-বড় মিলে দুই শতাধিক মসজিদ রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ৫০টি মসজিদে বাংলাদেশি হাফেজ ও আলেমরা দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁরা নতুন প্রজন্মের মধ্যে ইসলামী শিক্ষা বিস্তারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা এখানকার মসজিদে নামাজ পড়েন। তাই ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালনের অনুভূতি অন্য রকম। তবে এখানে এসে প্রিয় মাতৃভূমির যে বিষয়টি খুবই মিস করি তা হলো উচ্চ ধ্বনিতে আজানের সুর। বিশেষ করে ইফতার এবং সাহরির সময়।’

আমিন উদ্দীনের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতকে। নিজ গ্রাম সেওতরপাড়া মাদরাসায় হিফজ করেন। ২০১১ সালে তিনি জামেয়া মদিনাতুল উলুম খাসদবির দারুস সালাম থেকে দাওরা হাদিস সম্পন্ন করেন।

কাতারে ইমামদের বিশেষ মর্যাদা

কাতারের ওয়াকরায় অবস্থিত একটি মসজিদে তারাবির নামাজ পড়ান মাওলানা সাইফুল ইসলাম। উম্মে বাশার এলাকার বারওয়া মদিনাতনা মসজিদের নিয়মিত ইমাম নোয়াখালীর এই তরুণ।

ইসলামী জীবন
দেশে দেশে তারাবির নামাজে বাংলাদেশি ইমাম

প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল, ২০২৩ ১০:৩৬
দেশে দেশে তারাবির নামাজে বাংলাদেশি ইমাম
দেশে দেশে তারাবির নামাজে বাংলাদেশি ইমাম

বহির্বিশ্বে বিশেষ সুনাম আছে বাংলাদেশি ইমামদের। তাঁরা নিয়মিত ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সুনামের সঙ্গে তারাবির নামাজের ইমামতি করে থাকেন। প্রতিবছরের মতো এবারও বাংলাদেশি হাফেজরা বিশ্বের নানা প্রান্তে তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন। কালের কণ্ঠ’র পক্ষ থেকে বিভিন্ন দেশে দায়িত্বরত ইমামদের সঙ্গে কথা বলেছেন মুহাম্মাদ হেদায়াতুল্লাহ

কোরআন শিক্ষার চাহিদা বাড়ছে যুক্তরাজ্যে

যুক্তরাজ্যের লুটন শহরে তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন বাংলাদেশের মাওলানা মুআজ্জম হুসাইন জাহিদ। শহরের ৩১৪ বিস্কট রোডের আল-জালাল মসজিদের নিয়মিত ইমাম সুনামগঞ্জের এই তরুণ আলেম। পবিত্র রমজানে তিনি তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন রেইনহ্যাম ওয়ে কমিউনিটি সেন্টারে। মুয়াজ্জম বলেন, ‘এখানে দেড় বছর ধরে আমি জুমার নামাজ পড়াচ্ছি। রমজান উপলক্ষে মুসলিম কমিউনিটির উদ্যোগে এখানে তারাবির নামাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিদিন বিভিন্ন দেশের দুই শতাধিক নারী ও পুরুষ নামাজ পড়তে আসেন। ভবিষ্যতে এখানে স্থায়ী মসজিদ তৈরির পরিকল্পনা আছে।’

তা ছাড়া এখানকার মসজিদে বৈকালীন মক্তব শিক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন সেমিনার, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সামাজিক কার্যক্রম রয়েছে। উল্লেখ্য, জাহিদ মুয়াজ্জমের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতকে। তিনি চট্টগ্রামের জামেয়া দারুল মা‘আরিফ আল-ইসলামিয়ায় পড়াশোনা করেন। ২০১৭ সালে তিনি জামিয়া ইসলামিয়া হুসাইনিয়া গহরপুর থেকে দাওরা হাদিস সম্পন্ন করেন।

প্যারিসের ৫০ মসজিদে বাংলাদেশি ইমাম

ইউরোপীয় দেশগুলোর মধ্যে ফ্রান্সে সবচেয়ে বেশি মুসলিম বসবাস করে। অধিকাংশ মুসলিম আফ্রিকান বংশোদ্ভূত হলেও সেখানে অন্যান্য দেশের মুসলিমরাও আছে। রাজধানী প্যারিসের শ্রীলঙ্কান কমিউনিটির কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম ও খতিব হিসেবে দীর্ঘ পাঁচ বছর দায়িত্ব পালন করেন মাওলানা আমিন উদ্দীন। বর্তমানে সারসেল জামে মসজিদে তারাবির নামাজ পড়াচ্ছেন সুনামগঞ্জের এই তরুণ আলেম। আমিন উদ্দীন বলেন, ‘প্যারিসের ছোট-বড় মিলে দুই শতাধিক মসজিদ রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ৫০টি মসজিদে বাংলাদেশি হাফেজ ও আলেমরা দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁরা নতুন প্রজন্মের মধ্যে ইসলামী শিক্ষা বিস্তারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা এখানকার মসজিদে নামাজ পড়েন। তাই ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালনের অনুভূতি অন্য রকম। তবে এখানে এসে প্রিয় মাতৃভূমির যে বিষয়টি খুবই মিস করি তা হলো উচ্চ ধ্বনিতে আজানের সুর। বিশেষ করে ইফতার এবং সাহরির সময়।’ আমিন উদ্দীনের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতকে। নিজ গ্রাম সেওতরপাড়া মাদরাসায় হিফজ করেন। ২০১১ সালে তিনি জামেয়া মদিনাতুল উলুম খাসদবির দারুস সালাম থেকে দাওরা হাদিস সম্পন্ন করেন।

 

কাতারে ইমামদের বিশেষ মর্যাদা

কাতারের ওয়াকরায় অবস্থিত একটি মসজিদে তারাবির নামাজ পড়ান মাওলানা সাইফুল ইসলাম। উম্মে বাশার এলাকার বারওয়া মদিনাতনা মসজিদের নিয়মিত ইমাম নোয়াখালীর এই তরুণ। প্রতিদিন বহুসংখ্যক মুসল্লি তাঁর পেছনে তারাবি পড়তে আসেন। তিনি বলেন, ‘বারওয়া সিটিতে মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশের লোক বসবাস করে। নামাজে কেরাত শোনার পর ইমাম বাংলাদেশি জানতে পেরে অনেকেই বেশ অবাক হন। এখানে ইমামদের অত্যন্ত সম্মান ও শ্রদ্ধার চোখে দেখা হয়।’

কাতারে এসে বাংলাদেশের খতম তারাবির কথা মনে পড়ে বলে জানান সাইফুল ইসলাম। কেননা সেখানকার সব মসজিদে বাংলাদেশের মসজিদের মতো খতম তারাবি হয় না। সাইফুল ইসলামের বাড়ি নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে। তিনি চট্টগ্রামের দারুল মা’আরিফে পড়াশোনা করেন।

দ্বিন পালনে সচেষ্ট নিউ ইয়র্কের মুসলিমরা

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটিতে তারাবির নামাজ পড়ান মাওলানা সাহেদ নিজাম। তিনি কুইন্সের সানিসাইড উডসাইড জামে মসজিদের নিয়মিত ইমাম ও খতিব। বর্তমানে তিনি তারাবি পড়াচ্ছেন ম্যানহাটন শহরের আস-সাফা জামে মসজিদ ও ইসলামিক সেন্টারে। প্রতিদিন এখানে দুই শর বেশি মুসল্লি তারাবির নামাজ পড়তে আসেন। তাঁদের মধ্যে অনেক বাংলাভাষীও আছেন। সাহেদ নিজাম বলেন, ‘মসজিদের তত্ত্বাবধানে হিফজ মাদরাসা আছে। তা ছাড়া প্রতিদিন দাওয়াত ও তাবলিগের কার্যক্রম পরিচালিত হয়। বিভিন্ন সময় সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও হয়ে থাকে। পুরোপুরি ভিন্ন পরিবেশেও যে ইসলামী নির্দেশনা মতে জীবনযাপন করা যায় তা এখানে না এলে বোঝা কঠিন। ইমামদের এখানে যে সম্মান দেওয়া হয় তা সত্যিই অবাক করার মতো। এমন স্থানে দ্বিনি শিক্ষা বিস্তারে যুক্ত থাকা সত্যিই সৌভাগ্যের বিষয়।’ সাহেদ নিজামের বাড়ি সিলেটের জকিগঞ্জে। তিনি জামিয়া দারুসসুন্নাহ বড়পাথর জকিগঞ্জ থেকে হিফজ সম্পন্ন করেন। ২০১৭ সালে তিনি জামিয়া হুসাইনিয়া গহরপুর থেকে দাওরা হাদিস সম্পন্ন করেন।

যাঁর কেরাত শুনে মুগ্ধ শারজার মুসল্লিরা

আরব আমিরাতের শারজায় ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মাওলানা মুহাম্মদ আতিকুল্লাহ। অ্যাগ্রিকালচারাল ফালাহ এলাকার ইমাম শাতেবি মসজিদের ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন চট্টগ্রামের এই তরুণ। রমজানে একই মসজিদে তারাবি পড়াচ্ছেন তিনি। আতিকুল্লাহ বলেন, ‘আল্লাহর অনুগ্রহে শারজাহ ধর্মবিষয়ক অধিদপ্তর কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। দুই বছর ধরে ইমাম শাতেবি মসজিদের ইমাম হিসেবে রয়েছি। এখানে প্রতিদিন তারাবির নামাজ পড়তে দুই শতাধিক মুসল্লি আসেন। অনেকেই নামাজে কোরআন তিলাওয়াত শুনে মুগ্ধ হন। একজন বাংলাদেশি ইমাম হিসেবে তা সত্যিই গর্বের।’ উল্লেখ্য, মাওলানা মুহাম্মদ আতিকুল্লাহর বাড়ি চট্টগ্রামের বাঁশখালী। তিনি জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল-ইসলামিয়ায় পড়াশোনা করেন। ২০১৯ সালে তিনি হাটহাজারি মাদরাসায় দাওরা হাদিস সম্পন্ন করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা